পোল্যান্ড জব ভিসা || পোল্যান্ড ভিজিট ভিসা

পোল্যান্ড জব ভিসা || পোল্যান্ড ভিজিট ভিসা

আসসালামু আলাইকুম, প্রিয় পাঠক আজকে আপনাদের সাথে আলোচনা করব পোল্যান্ড জব ভিসা। আমরা পলান পলান্ড পোল্যান্ড জব ভিসা সম্পর্কে অনেকেই জানিনা তাই আজকে আপনাদের মাঝে আলোচনা করো পোল্যান্ড জব ভিসা সাথে আরো আলোচনা করবো।


পোল্যান্ড ভিজিট ভিসা এই সম্পর্কে আমরা বিভিন্ন রাষ্ট্রে যাওয়ার ইচ্ছা পোষণ করি কিন্তু দেখা যায় অনেক নিয়ম কানুন ভিসা সম্পর্কে রাষ্ট্রের সম্পর্কে জানি না তাই আজকে আমরা নিচে পোল্যান্ড জব ভিসা ও পলান্ড ভিজিট ভিসা এই সম্পর্কে তথ্য তুলে ধরবো আশা করি আপনাদের অবশ্যই পলান্ড ভিসা সম্পর্কে ও পোল্যান্ড ভিজিট ভিসা সম্পর্কে কিছু তথ্য দিতে পারব।

পোল্যান্ড জব ভিসা

পোল্যান্ড জব ভিসা এর নিয়ম আপনি এই ভিসার মাধ্যমে পোল্যান্ড বসবাস করতে পারবেন। এক্ষেত্রে প্রথমে আপনাকে দূতাবাস থেকে ভিসা দেওয়া হবে যার মেয়াদ সাধারণ এক বছর দেওয়া হয় তবে ভিসার মেয়াদ শেষ হলে আপনি 1 থেকে চার বছর বা তার বেশি ভিসা রিনিউ করতে পারবেন। এই সময়ের মধ্যে আপনি যেখানে বসবাস শুরু করতে চান সেখানে পরিবারের সদস্য নিতে পারবেন এবং সেখানে স্থায়ীভাবে বসবাস করতে পারবেন। 

পোল্যান্ড ভিসা সম্পর্কে কি কি প্রয়োজন।

আপনাকে ভিসার জন্য যা যা করতে হবে সেগুলো হলো আপনার সমস্ত নথিপত্র জমা করতে হবে জমা করার ৬০ দিনের মধ্যে আপনার কাজের অনুমতি ইস্যু হবে এম্বাসিতে ভিসার জন্য সব কাগজপত্র জমা করতে হবে কাগজপত্র জমা করার পরে আপনাকে ফ্লাইট এর টিকিট নিতে হবে।


পোল্যান্ড জব ভিসা চাকরির প্রকারভেদ


পোল্যান্ড জব ভিসা বিভিন্ন প্রকার চাকরি থাকে।  আপনার শিক্ষাগত যোগ্যতা অনুযায়ী এবং আপনার কাজের অভিজ্ঞতা অনুযায়ী আপনি চাকরি করতে পারেন ।

চাকরির প্রকারভেদ নিচে দেওয়া হল

বিজনেস ম্যানেজমেন্ট, মার্কেটিং অফিসার, একাউন্টিং অফিসার, বৈদ্যুতিক ইঞ্জিনিয়ার, সিভিল ইঞ্জিনিয়ার, ইলেকট্রিশিয়ান, অর্থাৎ মেকানিক, মেডিকেল মেডিসিন, স্পেশালিস্ট ফ্যাশন ডিজাইনার, হোটেল রেস্টুরেন্ট ,সুপারভাইজার অফিসার ইত্যাদি । আপনার যে জিনিসের উপর অভিজ্ঞতা আছে সে বিষয়ে আপনার ইচ্ছা মতন চাকরি করতে পারবেন।


এর সাথে আপনার যে যে বিষয়ের উপর অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। উচ্চমাধ্যমিক পাস হতে হবে সাথে এক বছরের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। তাছাড়া ইংরেজিতে কথা বলার অভ্যাস থাকতে হবে ।তার পাশাপাশি বয়স 18 বছর বেশি হতে হবে।

ভিসা আবেদনের জন্য নিম্নলিখিত কাগজপত্র দূতাবাসের জমা দিতে হবে

ভিসা আবেদনের জন্য নিম্নলিখিত কাগজপত্র দূতাবাসের জমা দিতে হবে । পোল্যান্ড জব ভিসা জন্য যেসব কাগজপত্র লাগবে তা হলো পাসপোর্ট ছবি ৩৫ মিমি প্লাস ৪৫ মিমি। শিক্ষাগত যোগ্যতা সার্টিফিকেট সাথে মারসিট সত্যায়িত প্রশিক্ষণ।


আপনি যে বিষয়ের উপরে কাজ করতে চান সেই বিষয়ে প্রশিক্ষণ এর সার্টিফিকেট তাছাড়া আপনি যে কর্মস্থানে কাজ করতেন সেখানের অভিজ্ঞতা পত্র। অফিস আইডি বেতন ছুটির চিঠি তাছাড়া পুলিশ ক্লিয়ারেন্স। যে কোন রাষ্ট্রের ভিসা জন্ম সনদপত্র। ভোটার আইডি কাড পারিবারিক তথ্য।  এইসব কাগজ পাতি আপনাকে জমা দিতে হবে।


এসব কাগজপত্র জমা দেওয়ার ৬০ দিনের মধ্যে ভিসা ইস্যু হয়ে যাবে সাধারণত সময় লাগে ৩০ থেকে ৪০ দিন দূতাবাসের নিয়ম অনুসারে।


আশা করি আমাদের পোস্টটি পড়ার পর আপনারা হয়তো কিছুটা হলেও অভিজ্ঞতা হয়েছে। তাই আমাদের পোস্টটি যদি ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই আমাদের কমেন্ট করে জানাবেন পোল্যান্ড জব ভিসা বা পোল্যান্ড ভিজিট ভিসা আজকে শুধু এই বিষয়ের উপরে লেখা হয়েছে আপনাদের হয়তো  একটু হলেও বুঝতে পেরেছেন সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আসসালামু আলাইকুম।


Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url